মরুতীর্থ হিংলাজ by কালিকানন্দ অবধূত

মরুতীর্থ হিংলাজ by কালিকানন্দ অবধূত

বই : মরুতীর্থ হিংলাজ 
লেখক: কালিকানন্দ অবধূত 
প্রকাশনী: মিত্র ও ঘোষ 
রেটিং : ৮.৫/১০ 
 
বাংলা ভ্রমণ সাহিত্যের ধারার একটি বিখ্যাত গ্রন্থ এটি। সমনামের সিনেমার দৌলতে কম বেশি সবাই মূল কাহিনির সঙ্গে পরিচিত। তবু সিনেমা ও বইয়ের তফাত তো আছেই। লেখক চলেছেন হিংলাজ দর্শনে। রুক্ষ মরুপথে গোটা যাত্রা ― প্রভূত শারীরিক কষ্ট, এমনকি মৃত্যুও হতে পারে পথে। লেখক নিরাসক্ত সন্নাসী হলেও নানা ঘটনায় ঘরের প্রতি তাঁর টান, পারিবারিক জীবনের ছোটো ছোটো সুখ-দুঃখের মধুর স্মৃতিচারণ, গৃহজীবনে ফিরে যেতে না পারার আক্ষেপ তিনি প্রকাশ করে ফেলেছেন। এ শুধু খেয়ালের ভ্রমণ নয়, এ হলো তীর্থ, সফল হলে অশেষ পুণ্য অর্জন। কিন্তু তীর্থপথে চলতে চলতে শেষে আর থাকে না সেই পুণ্যেরও মোহ, তখন যেন শুধু অভ্যাসে এগিয়ে যাওয়া। কঠিন শারীরিক শ্রম, ক্লান্তি, তারই ফাঁকে শুষ্ক মরুর মধ্যে জীবনের ফল্গুধারার সন্ধান; স্নেহ, প্রেম, বন্ধুত্ব, প্রকৃতির অপরূপ, অভাবনীয় জাদুর সন্ধান যেমন লেখক পেয়েছেন, তেমনি আবার মানুষের অন্ধকার দিকের সঙ্গেও পরিচয় হয়েছে তাঁর। হটকারিতায় করে ফেলা পাপের জন্য দুঃসহ মানসিক যন্ত্রণায় দগ্ধ হতে দেখেছেন মানুষকে, দেখেছেন বীভৎস মৃত্যু, বিশ্বাসঘাতকতা। আবার সেই মানুষেরাই বিপদের দিনে অন্যকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে, শূন্য মরুর বুকে দুহাতে সাজিয়ে দিয়েছে তৃপ্তির উপাদান। মরুপথের একঘেয়েমি দূর করেছে বিচিত্র মানুষ, আর তাদের নানান অদ্ভুত কাজকারবার। একই সঙ্গে প্রকৃতি আর মানুষের রুক্ষ ও কোমল দুই দিক মিলিয়েই সম্পূর্ণতার ছবি এঁকেছেন তিনি। সহজ আর সরস ভাষা ও বর্ণনাভঙ্গির জন্য পাঠকও যেন যাত্রীদলেরই অংশ হয়ে পড়ে। যুগের বাধা, ভূগোলের সীমা পেরিয়ে পাঠকমন সাক্ষী হয় চিরকালের, চিরজীবনের পথ পরিক্রমার।

Post a Comment

0 Comments