ক্ষুধা : ন্যুট হামসুন অনুবাদক : সৌরিন নাগ Khudha by Knut Hamsun / Sourin Nag

ক্ষুধা : ন্যুট হামসুন অনুবাদক : সৌরিন নাগ Khudha by Knut Hamsun / Sourin Nag

নাম : ক্ষুধা 
লেখক : ন্যুট হামসুন
অনুবাদক : সৌরিন নাগ
প্রকাশনী : সন্দেশ
ধরণ : মনস্তাত্ত্বিক উপন্যাস 
মূল্য : ১৯৫
দেশ : বাংলাদেশ

ন্যুট হামসুন একজন নরওয়েজিয়ান বিখ্যাত ঔপন্যাসিক। তিনি ১৯২০ সালে সাহিত্যে নোবেল পান।

আধুনিক সাহিত্যধারায় এটি তাঁর অন্যতম প্রধান শিল্পকর্ম হিসেবে বিবেচিত। ১৯৮০ সালে এটির প্রথম প্রকাশ পাঠকমহলে ব্যাপক দৃষ্টি আকর্ষণ করেছিল।

উপন্যাসটি নরওয়ের রাজধানী অসলোর পটভূমিতে রচিত। উপন্যাসের প্লট খুবই বাস্তবিক ও সামাজিক প্রতীতিবাদী। 
মানুষের যে পাঁচটি মৌলিক অধিকার আছে তন্মন্ধ্যে খাদ্য সর্বাগ্রে। খাদ্য ছাড়া জীবন চলে না। বেঁচে থাকার প্রধান উপাদান খাদ্য। অন্যথায় কোনো প্রাণীই জীবনযাপন ও বংশবৃদ্ধির পরবর্তী ধাপে উত্তীর্ণ হয় না। কিন্তু পুঁজিবাদী সমাজে জীবনের এই গুরুত্বপূর্ণ উপাদানটি আর ব্যক্তিজীবনের সংশ্লিষ্ট নয়। পুঁজি বিকাশের দাপটে তাঁরা যেভাবে খাদ্য উৎপাদন লাভজনক মনে করেন সেটির ওপরই খাদ্য সরবরাহ নিয়ন্ত্রিত করে ফেলেন। ফলে মানুষের জীবন তাঁদের হাতে নিয়ন্ত্রিত হয়ে যায়। যদিও খাদ্য মানুষের জন্মগত অবাধ অধিকার যেহেতু পৃথিবীতে বেঁচে থাকার অধিকার সবার প্রাপ্য। এই প্রাপ্য না পেলে মানুষের চরিত্র, নৈতিকতা ও জীবনবোধ কীভাবে প্রভাবিত হয়, সেটাই ঝকঝকে ছবির মতো দেখানো হয়েছে। 
ও হ্যা, উপন্যাসে লেখকের সৃজনশীল মননের বহিঃপ্রকাশও ঘটেছে। লেখক তৎকালীন সামাজিক ধারার বাইরে নতুন কিছু বিনির্মাণের রসদ অনুসন্ধান করেছেন আর বিনির্মাণের দায়িত্বটা আমরা পাঠকদের ওপর ছেড়ে দিয়েছেন। তাহলে কতটুকু প্রস্তুত আমরা?

রিভিউটি লিখেছেনঃ Afzal Munna

Post a Comment

0 Comments