কিংবদন্তীর প্রেত - অনীশ দাস অপু Kingbodontir Pret By Anish Dash Opu

কিংবদন্তীর প্রেত - অনীশ দাস অপু
সিস্টারস অব জেরুসালেম হাসপাতালে এক অদ্ভুত রোগিনীর মুখোমুখি হলেন ডাঃ রেমন্ড। তার রোগিনী শ্যারন রেনল্ডস একজন ককেশিয়ান। তার অসুখটা হলো তার ঘাড়ে একটা টিউমার হয়েছে। শুরুতে ডাঃ রেমন্ডের এটাকে সাধারন টিউমার বলে মনে হলো। সে ভাবলো হয়তো অপারেশন করে একে সরিয়ে ফেলা সম্ভব। কিন্তু পরবর্তীতে দেখা গেলো এটাকে কিছুতেই অপারেশন করে সরানো সম্ভব নয়। কারন এটি কোনো টিউমারই নয়, এটি হচ্ছে একটি মানবভ্রুন। ডাঃ রেমন্ড হতভম্ব হয়ে গেলেন। কোনো মানুষের ঘাড়ে কখনো মানবভ্রুন গজাতে দেখেননি তিনি। তারচেয়েও বড় কথা ভ্রুনটায় যেনো প্রাণ আছে। ওটা নড়ছে। এবং এমনভাবে শ্যারনের ঘাড়ের সাথে সেটে আছে যে কেটে আলাদা করতে গেলে শ্যারনও মারা যাবে।

অলোক চৌধুরী একজন বাংলাদেশী সাইকিক যিনি আমেরিকায় জ্যোতিষশাস্ত্রের মাধ্যমে জীবিকা নির্বাহ করেন। সিস্টারস অব জেরুসালেমে যেদিন শ্যারনের অপারেশন হবে তার আগের দিন শ্যারন তার কাছে যান হাত দেখাতে। শ্যারনের ইচ্ছা অপারেশনের দিন তার ভাগ্যে কি ঘটবে তা জানা। এছাড়া অদ্ভুত একটা স্বপ্ন দেখে শ্যারন। সেই স্বপ্নে কোনো একটা বার্তা আছে যা ও ধরতে পারছেনা। অলোক চৌধুরী এবার কিছুটা ঝামেলায় পড়ে যায়। কারন ব্যাপারটায় সত্যি অতিপ্রাকৃত কিছু একটা আছে। শ্যারন চলে যাওয়ার পর ওর ট্যারট কার্ডে মৃত্যুর ছবি পাওয়ায় আরো দুশ্চিন্তায় পড়ে যায় অলোক। শ্যারনের ব্যাপারটা নিয়ে মাথা ঘামাতে শুরু করে অলোক। এবং এর পরের দিনই ওর এক ক্লায়েন্ট ওর কাছে এসে রহস্যময় আচরন ও অদ্ভুত কিছু শব্দ উচ্চারন করে মারা যায়।

এবার বুঝতে পারে অলোক ব্যাপারটা খুব সিরিয়াস। এদিকে শ্যারনের অপারেশন কিছুতেই সম্ভব হয়না। টিউমারটা পুরো ভ্রুণে পরিণত হয়েছে। শ্যারনের কর্তৃত্ব চলে যাচ্ছে অদৃশ্য কোনো শক্তির ওপর। নিজের এক আত্মীয়া বোনের সাথে যোগাযোগ করে অলোক।
বইয়ের নামঃ কিংবদন্তীর প্রেত
লেখকঃ অনীশ দাস অপু
প্রকাশনীঃ সেবা প্রকাশনী
প্রকাশকালঃ
পৃষ্ঠা সংখ্যাঃ ১৯৭
সাইজঃ ৬.৩ এমবি
ফরম্যাটঃ PDF
টেক্স ফরম্যাটঃ HD Scanned Version
রেজুলেশনঃ ৬০০ DPI
বইয়ের ধরণঃ পিচাশ কাহিনী
কিংবদন্তীর প্রেত - অনীশ দাস অপু

or


পরের বই
« Prev Post
আগের
Next Post »

iklan banner